গাইবান্ধাগাইবান্ধা সদর

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সিপিবি’র বিক্ষোভ

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের ব্যর্থতা ও অবৈধ ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটকে দায়ী করে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষিত সারাদেশে সপ্তাহব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে গাইবান্ধা জেলা শহরের ডিবি রোডে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, গণবিরোধী সরকার আর অবৈধ সিন্ডিকেটের যোগসাজশে ভোক্তা জনগণের পকেট কাটা হচ্ছে। লুটপাটের ধাক্কায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম মানুষের নাগালের বাইরে। ‘বিনা ভোটের সরকার’ দেশের মানুষকে আজ ভাতে মারতে চলেছে বলে উল্লেখ করেন নেতৃবৃন্দ।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারি সাধারণ সম্পাদক ও জেলা সভাপতি মিহির ঘোষ, জেলা সিপিবি সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজু রহমান মুকুল, জেলা সিপিবি সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য গোলাম রব্বানী মুসা, আসোয়াদ আলী প্রমুখ।

সমাবেশে মিহির ঘোষ বলেন, গণবিরোধী সরকার লুটেরা, মুনাফাখোর, মজুদদারদের ‘পাহারাদার’ হিসেবে ব্যবসায়ী-সিন্ডিকেটকে রক্ষা করে চলেছে। সাধারণ মানুষের প্রতি সরকারের কোনো দায় নেই। একদিকে ভোক্তাদের পকেট কাটা হচ্ছে, অন্যদিকে উৎপাদক কৃষক প্রতারিত হচ্ছে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ আজ দিশেহারা। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের বক্তব্যে ব্যবসায়ীরা আরো উৎসাহিত হয়েছে। সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রত্যেক এলাকায় ন্যায্য মূল্যের দোকান চালু করারও দাবি করেন তিনি।

বক্তারা দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রনে চলমান লুটপাটতন্ত্র ও দুঃশাসনের অবসান ঘটানোর লড়াইয়ে সামিল হতে দেশের মানুষের প্রতি আহ্বান জানান।

সমাবেশের পূর্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ও গরীব মানুষের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালুসহ বিভিন্ন দাবি-দাওয়া সম্বলিত ব্যানার-ফেষ্টুন ও লাল পতাকা নিয়ে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

Back to top button