গাইবান্ধা

গাইবান্ধায় করোনায় আরও একজনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৬

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গাইবান্ধায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন করে আরও ষোলজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪৯ জনের মৃত্যু হলো। আর মোট আক্রান্ত হয়েছে ৪ হাজার ৪০৯ জন।

জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয় সুত্র জানায়, গত ২৪ ঘন্টায় বুধবার (১৮ আগস্ট) গাইবান্ধায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গাইবান্ধায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃত আব্দুর সাত্তারের বাড়ি গাইবান্ধা পৌরসভার স্টেশন রোডে। একই সময়ে এই ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ জন। এরমধ্যে সদরে ৬, সুন্দরগঞ্জে ৪, সাঘাটায় ১, পলাশবাড়িতে ২ ও সাদুল্লাপুর উপজেলায় ৩ জন রয়েছেন। এ পর্যন্ত জেলায় সর্বমোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৪০৯ জন। এরমধ্যে ৩ হাজার ৩৮০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে বিভিন্ন আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯৮০ জন। জেলায় মোট শনাক্তের বিপরীতে সুস্থতার হার ৭৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গাইবান্ধা জেলায় করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি ২৫টি চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে রোগীদের জন্য বেড রয়েছে ৬৭১টি। চিকিৎসা সেবায় ১৫৪ জন ডাক্তার ও নার্স রয়েছেন ২০৯ জন। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত রোগীদের জরুরি চিকিৎসায় স্থানান্তরের নিমিত্তে পৃথকভাবে এ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রোবাস প্রস্তুত রয়েছে। একই সঙ্গে ১০০ বেডের আইসোলেসন রয়েছে। রোগীদের জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

গাইবান্ধা সিভিল সার্জন ডা. আ ম আখতারুজ্জামান বলেন, করোনা চিকিৎসার জন্য সকল সামগ্রীসহ ডাক্তার-নার্সদের সুরক্ষার সামগ্রীও মজুদ রাখা হয়েছে। বিশেষ ব্যবস্থাপনায় ও রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করে কোভিডের বর্জ্য ধ্বংস করা হচ্ছে।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন জানান, করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ঠেকাতে মানুষদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করা হচ্ছে। এছাড়াও নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

আমারজেলা ডট নিউজ

Back to top button