ঢাকাসোমবার , ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
  1. অর্থনীতি
  2. আইন আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. কনভার্টার
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. খেলাধুলা
  7. গাইবান্ধা
  8. গাইবান্ধা সদর
  9. গোবিন্দগঞ্জ
  10. চাকুরী
  11. জাতীয়
  12. ধর্ম
  13. পলাশবাড়ী
  14. প্রবাসের খবর
  15. ফিচার
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কম্পিউটারের স্ক্রিন কি আপনার বয়স বাড়িয়ে দিচ্ছে?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১ ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সারাদিন কম্পিউটার এবং মোবাইল ফোনে কাজ করলে তা আপনার স্বাস্থ্যকে একাধিক উপায়ে প্রভাবিত করতে পারে। শুরুতে এটি আপনার হাতের পেশীগুলোতে চাপ প্রয়োগ করে, চোখ শুকিয়ে যায়, ঘাড়ে ব্যথা করে এবং ওজন বাড়ায়। তাছাড়া বিরতি না নিয়ে ক্রমাগত গ্যাজেট ব্যবহার করলে তা আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের ওপরও প্রভাব ফেলতে পারে, যার ফলে মেজাজ বদলে যায় এবং বিরক্তি বাড়তে থাকে।

শারীরিক ও মানসিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াও, সারাদিন কম্পিউটারের নীল আলোর সামনে থাকলে তা আপনার ত্বকের সূক্ষ্ম ক্ষতি করতে পারে। এর ফলে আপনাকে বয়স্ক এবং ক্লান্ত দেখাতে পারে। ডিজিটাল প্রযুক্তির ওপর নির্ভরতা কীভাবে আপনার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে এবং সেই ক্ষতি কমানোর জন্য করণীয় সম্পর্কে চলুন জেনে নেওয়া যাক-

কম্পিউটার থেকে নির্গত নীল আলোর কারণে সমস্যা

আপনার ত্বকের কোষের ক্ষতির জন্য অভিযুক্ত অপরাধী হলো উচ্চ শক্তি সম্পন্ন দৃশ্যমান আলো যা ইলেকট্রনিক ডিভাইস দ্বারা নির্গত নীল আলো নামেও পরিচিত। এটি হলো দৃশ্যমান বর্ণালীতে ভায়োলেট-নীল ব্যান্ডে ছোট তরঙ্গদৈর্ঘ্যর আলোর উচ্চ-ফ্রিকোয়েন্সি। নীল আলো সূর্যের রশ্মি, টিউব লাইট, এলইডি এবং টিভি স্ক্রিন, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট এবং কম্পিউটার সহ সব ধরনের গ্যাজেট দ্বারা নির্গত হয়ে থাকে। কিন্তু আপনার কম্পিউটার এবং মোবাইলের স্ক্রিন থেকে নির্গত আলোর কারণে ত্বকের কোষ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা বেশি। কারণ এগুলো আপনার মুখের কাছাকাছি থাকে।

এর আগে মানুষ অদৃশ্য অতিবেগুনী রশ্মি সম্পর্কে উদ্বিগ্ন ছিল, যা ত্বকের ক্যান্সার সৃষ্টি করে বলে ধারণা করা হয়েছিল। এখন বেশ কয়েকটি গবেষণায় জানা গেছে যে, নীল আলো ত্বকের জন্য সমানভাবে ক্ষতিকারক হতে পারে এবং কিছু অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে।

নীল আলো আপনার ত্বককে কীভাবে প্রভাবিত করে?

আগে মনে করা হতো যে, নীল আলো কেবল নিদ্রাহীনতার কারণ হতে পারে এবং দৃষ্টিশক্তিকে প্রভাবিত করে। তবে ইদানিং ত্বকেও এর প্রভাব আবিষ্কৃত হয়েছে। সূর্যের রশ্মিতে উপস্থিত অতিবেগুনি রশ্মি সরাসরি কোষের ডিএনএকে ক্ষতিগ্রস্ত করে, এদিকে নীল আলো জারণ চাপ সৃষ্টি করে কোলাজেনকে ধ্বংস করে।

যখন আমাদের ত্বকে উপস্থিত রাসায়নিকগুলো নীল আলো শোষণ করে তখন একটি প্রতিক্রিয়া ঘটে যা অস্থির অক্সিজেন অণু উৎপাদন করে। ফলে ত্বকের ক্ষতি হয়। এগুলো কোলাজেনে ছোট ছোট ছিদ্র সৃষ্টি করে যার ফলে আপনাকে বয়স্ক দেখায়।

গবেষণায় আরও বলা হয়েছে যে, নীল আলোও হাইপারপিগমেন্টেশনের (ত্বকের রঙ পরিবর্তন) কারণ হতে পারে। শ্যামলা কিংবা কালো ত্বকের মানুষের ক্ষেত্রে এই সমস্যাটি সাধারণ, তবে ফর্সা ত্বকের মানুষের ক্ষেত্রে তুলনামূলকভাবে প্রভাব কম থাকে।

কীভাবে ত্বকের ক্ষতি রোধ করবেন?

ত্বকের ক্ষতি কমানোর সহজ উপায় হলো আপনার ডিভাইস থেকে নির্গত নীল আলোর পরিমাণ সীমিত করা। আপনি আপনার ডেস্কটপ কিংবা ল্যাপটপের এলইডি বাল্ব বদল করতে পারেন। কম্পিউটারসহ সব ধরনের গ্যাজেটের সামনে থাকার সময় কমিয়ে আনুন। একটানা কম্পিউটারের সামনে বসে কাজ করবেন না। কিছুক্ষণ পরপর বিরতি নিন। গ্যাাজেট থেকে নির্গত নীল আলোর বিরুদ্ধে কার্যকর এমন কোনো সানস্ক্রিন ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।